ফগলাইট ব্যাবহারে এক্সপার্ট অপিনিয়ন

January 17, 2023

ফগলাইট ব্যাবহারে এক্সপার্ট অপিনিয়ন

আমরা যারা মোটরবাইক রাইড করি, শীতকালে ফগলাইট ছাড়া বাইক রাইড করা অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়। বিশেষত যারা হাইওয়েতে চলাফেরা করেন তাদের জন্য। মাঝে মাঝে এতই ঘন কুয়াশা পড়ে যাতে ১০ হাত সামনেও কিছু দেখা যায়না।

কিন্ত ফগ লাইট ব্যাবহার করার ক্ষেত্রে অনেক বাধ্যবাধকতা রয়েছে, রয়েছে মামলার ভয়। অন্যদিকে ফগলাইট ব্যাবহার না করলে রয়েছে জীবনের ঝুকি। তাই ফগলাইট ব্যবহারের ক্ষেত্রে এক্সপার্টদের কিছু সাজেশন তুলে ধরছি।

আশা করি এতে অনেকে উপকৃত হবেন।

আরো পড়ুন

আপনার বাইকে ফগলাইট ইতোমধ্যে ইন্সটল করাথেকে থাকলে সতর্কভাবে ব্যবহার করবেন। প্রয়োজন না থাকলে সেটা ঢেকে রাখবেন এবং অন করবেন না। অবশ্যই অপ্রয়োজনীয় জায়গায় অপ্রয়োজনীয়ভাবে ব্যবহার করবেন না।

অবশ্যই হেডলাইটের উপরে কখনই ফগলাইট ব্যবহার করবেন না, এবং অবশ্যই খেয়াল রাখবেন ফগলাইটের ফোকাস যেনো হেডলাইটের চেয়ে এগিয়ে না থাকে। এটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

আরো পড়ুন

যদি শহরের ভিতরেই চলাচল করেন তাহলে শুধু শুধু ফগলাইট আপনার বাইকে সংযোজন করতে যাবেন না, কারন শহরের রাস্তায় এমনিতেই আলো থাকে। তাই ফগলাইটের প্রয়োজন হয় না। তাহলেই বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮ অনুযায়ী আপনি সুরক্ষিত থাকবেন।

শীতকাল বা কুয়াশাচ্ছন্ন/অতি বৃষ্টির প্রতিকূল পরিবেশে ফগ লাইট ইউজ করতে পারেন। তবে মাথায় রাখতে হবে ফগলাইটের আলো যেন হলুদ হয় কারন কুয়াশা বা বৃষ্টিতে ভিজিবিলিটি বাড়াতে হলুদ আলোই সবচেয়ে বেশি কার্যকরী। সাদা আলোর ফগলাইট ব্যাবহার না করাই ভালো।

ফগ লাইট কি বেআইনি কিনা এটা নিয়েও কনফিউশান রয়েছে, কারন চারচাকার গাড়িতে ফ্যাক্টরি ফিটেড ফগলাইট দেয়া থাকে, কিন্ত মোটরসাইকেলে ফগলাইট আলাদা সংযোজন করতে হয় তাই ট্রাফিক সার্জেন্টরা ফগলাইটকে অতিরিক্ত সংযোজন বা অননুমোদিত মোডিফিকেশন এর আওতায় ফেলে মামলা দিয়ে দেন।

তবে আপনি প্রয়োজন ছাড়া ফগলাইট ব্যাবহার করেন না এটা যদি সার্জেন্টকে বুঝিয়ে বলতে পারেন তাহলে মামলা থেকে ছাড় পেতেও পারেন।

আরো পড়ুন

আমরা ফগলাইট ইন্সটল করার সময় যে ভুল টা করি তা হলো হেডলাইটের উপরে ফগলাইট লাগাই, যা একেবারেই উচিত না।

সব সময় ফগ লাইট বাইক এর হেডলাইট এর নিচে সংযোজন করতে হবে। এতে বিপরীত দিক থেকে আসা যানবাহনের অসুবিধা হবে না।

তাছাড়া রিয়ার ভিউ মিরর বা হেডলাইট পাশে কি ফগ লাইট রেখে ইউজ করা যাবে না কারন এটাও হেডলাইটের উপরে হয়ে যায়।

বাইকের সাথে যদি ইনবিল্ট ফগলাইট দিয়ে দেওয়াও হয় তাহলেও আপনাকে পুলিশ আটকাতে পারে এবং হেনস্তা করতে পারে যদি আপনি ফগলাইটের অসতর্ক ব্যবহার করেন। অসতর্ক ব্যাবহার বলতে বুঝাচ্ছি ফগলাইটের পজিশন এবং বীম ঠিক না থাকা এবং আপনার লাইটের কারনে বিপরীতমুখী যানবাহনের সমস্যা সৃষ্টি করার কোনো অধিকার আপনার নেই।

যেমন আপনার বাইকে অনায়াসে ১২০ কিমি ঘন্টা টপ স্পীড উঠে কিন্ত রাস্তায় স্পীড লিমিট দেয়া ৪০, অথবা ৬০। এই নির্দিষ্ট গতি অতিক্রম করলেই আপনাকে মামলা দেয়া হবে। ফগলাইট ব্যাবহারের ক্ষেত্রেও বিষয়টা প্রায় কাছাকাছি।

যারা অলরেডি অনেকদিন যাবত ফগলাইট ব্যাবহার করছেন তারা কমেন্টে আপনার অভিজ্ঞতা ও মতামত শেয়ার করতে পারেন৷ কোন ব্রান্ডের ফগলাইট ভালো সেটাও উল্লেখ করলে অনেকেরই সুবিধা হবে৷

নিরাপদ হোক আপনার রাইডিং।

লেখাঃ ইকবাল আবদুল্লাহ রাজ

এডমিন # কিউরিয়াস বাইকার ডট কম।

আরো পড়ুন